November 11, 2020

এই পরামর্শগুলি দিয়ে আপনার হৃদয়কে স্বাস্থ্যকর রাখুন

এই পরামর্শগুলি দিয়ে আপনার হৃদয়কে স্বাস্থ্যকর রাখুন

হৃদয়
ছবি: সংগৃহীত


এই টিপস হৃদয়কে সুস্থ রাখতে সহায়তা করবে, কেবল এই জিনিসগুলি করুন। হৃৎপিণ্ডকে সুস্থ রাখার জন্য ডায়েট একটি ভাল জিনিস। জাঙ্ক ফুডকে বাই বাই বলে, এবং সবুজ শাকসব্জী খাও। একই সাথে আপনার প্রয়োজন মতো পানি পান করুন।

দীর্ঘ সময় ধরে লকডাউনের কারণে বাড়িতে আটকা পড়ে থাকা লোকদের জন্য এটি খুব উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি ছিল। তরুণরাও বাড়ি থেকে কাজ করার সময় স্বাস্থ্যের দিকে মনোনিবেশ করছে। প্রবীণরাও তাদের স্বাস্থ্যের বিষয়ে সচেতন নন। এই সময়ে কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের ঝুঁকি বাড়তে পারে। সমস্ত বয়সের মানুষের হৃদয়কে সুস্থ রাখতে বাড়িতে এই নিয়মগুলি অনুসরণ করা উচিত।

একটি রুটিন তৈরি করুন

এই সময়ে, আপনার একটি রুটিন তৈরি করা উচিত এবং সেই রুটিনটি অনুসরণ করা উচিত। এই রুটিনে আপনাকে সময়, ঘুম, খাবার থেকে উঠতে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। পর্যাপ্ত বিশ্রামও সেখানে থাকা উচিত। এটি হৃদয়ের স্বাস্থ্যকে ঠিক রাখে।

আরও পড়ুন: 30 দিনের মধ্যে কীভাবে কোলেস্টেরল হ্রাস করবেন?

সঠিক ডায়েট নিন

হৃৎপিণ্ডকে সুস্থ রাখার জন্য ডায়েট একটি ভাল জিনিস। জাঙ্ক ফুডকে বাই বাই বলে, এবং সবুজ শাকসব্জী খাও। একই সময়ে, জলের কোনও ঘাটতি থাকা উচিত নয়। আপনি লাল মাংস খেতে পারেন।

ডিজিটাল মোড গ্রহণ করুন

করোনাভাইরাস যুগে সামাজিক পাতন অপরিহার্য আবশ্যক, তাই আপনাকে অবশ্যই ডিজিটাল মোড গ্রহণ করতে হবে। ভিডিও, জুম কনফারেন্স এবং গোষ্ঠী ভিডিওতে রিসর্ট নিন। এছাড়াও, ভার্চুয়াল শেখার ক্লাস নেওয়া।

ধূমপান এবং অ্যালকোহল

হার্ট এবং ফুসফুস সম্পর্কিত রোগীদের জন্য ধূমপান এবং অ্যালকোহল গ্রহণ অত্যন্ত মারাত্মক। এটি সাধারণ মানুষের উপরও এর খারাপ প্রভাবগুলি দেখায়। এটি শরীরের টিকাদান ব্যবস্থাও দুর্বল করে দেয়।

ওজন বাড়তে দেবেন না

স্বাস্থ্যকর শারীরিক কাঠামো আপনার হৃদয় পরীক্ষা করতে এবং অন্যান্য রোগের সম্ভাবনা হ্রাস করতে সহায়তা করে। সুতরাং ওজন বাড়াতে এবং ডায়েটের সঠিকভাবে যত্ন নিতে দেবেন না।

কাজ করতে থাক

প্রতিদিন 30 মিনিট হাঁটার চেষ্টা করুন। একটি রুটিনে হালকা ওয়ার্কআউট পান। এটি শরীরকে সচল রাখে। নাচের মতো অনুশীলন অন্তর্ভুক্ত করুন।

এছাড়াও পড়ুন: হার্ট অ্যাটাকের 5 টি ঘরোয়া প্রতিকার

কাজের মধ্যে বিরতি নিন

যদিও কাজ করা প্রয়োজনীয়, এর অর্থ এই নয় যে আপনার নিজের শরীরকে শিথিল করা উচিত নয়। কাজের মাঝে বিরতি নিলে শরীরের শক্তি বৃদ্ধি পায় increases এটি হার্টকে যথাযথভাবে কাজ করে তোলে।

চিকিত্সা সতর্কতা অনুশীলন করুন

কোনও স্বাস্থ্য সমস্যা থাকলে অবহেলা করবেন না। যেমন বুকে ব্যথা, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা, পা ফুলে যাওয়া এবং মাথা ঘোরা হওয়া এগুলি কার্ডিওভাসকুলার রোগ হতে পারে।

দাবি অস্বীকার: যে কোনও ব্যবস্থা গ্রহণের আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না